অভিনেত্রী আনোয়ারা চোখে দেখতে পাচ্ছেন না

ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় অভিনেত্রী আনোয়ারা  মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের পর চোখে দেখতে পারছেন না। প্রতিঘন্টাকে তার অসুস্থতার খবর জানিয়েছেন তার মেয়ে মুক্তি।  

মুক্তি জানান, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের কারণে আম্মার চোখ আক্রান্ত হয়েছে। প্রথমদিকে কিছুই দেখতে পাচ্ছিলেন না। তবে, আস্তে আস্তে ঠিক হচ্ছে। 

১১ মার্চ রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেত্রী, দশ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে রোববার তাকে বাসায় আনা হয়েছে জানান মুক্তি। 

এদিকে  বুধবার ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে হল অব ফেম মিলনায়তনে বসছে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০’–এর এবারের আসর। সেখানে হাজির হয়ে আজীবন সম্মাননা গ্রহণের কথা ছিল আনোয়ারা বেগমের। তবে অসুস্থতার কারণে সশরীরে উপস্থিত থেকেও পুরস্কার নিতে পারছেন না আনোয়ারা। তার হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করবেন মেয়ে মুক্তি।

ষাট দশকে ঢাকাই সিনেমায় আগমন ঘটে আনোয়ারা বেগমের। নৃত্যশিল্পী হিসেবে অভিষেক, এর পর নায়িকা। সবশেষ আলোচিত হয়েছেন মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে। একবার সেরা অভিনেত্রীসহ মোট আট বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেছেন তিনি। সিনেমাগুলো হচ্ছে, গোলাপী এখন ট্রেনে (১৯৭৮), সুন্দরী (১৯৭৯), সখিনার যুদ্ধ (১৯৮৪), শুভদা (১৯৮৬), মরণের পরে (১৯৯০), রাধা কৃষ্ণ (১৯৯২), বাংলার বধূ (১৯৯৩) ও অন্তরে অন্তরে (১৯৯৪)। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে সাড়ে ছয়শর বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন আনোয়ারা।