সালমানও আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন !

বলিউড অভিনেতা সালমান খানও আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন।  ৫২ বছর এই নায়ককে পেতে এখনও পাগল হাজার হাজার তরুণী। বিভিন্ন সময় ঐশ্বরিয়া, ক্যাটরিনাসহ অনেক নায়িকার সঙ্গে তার প্রেম ছিল বলে খবর এসেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোনো সম্পর্কই বেশি দিন স্থায়ী হয়নি সালমান খানের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিয়েটা আর করা হয়নি ভাইজানের। আর এ কারণেই কী সালমান খান একাকীত্বে ভুগছেন? এমন প্রশ্ন সালমান ভক্তদের মনে ঘুরলেও সে প্রশ্নের উত্তর আজও মেলেনি। সালমান তার নিজ গুণে অভিনয় করে যাচ্ছেন নিয়মিত।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, তবে এই সুপারস্টার আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। মূলত ‘ট্রাইজেমিনাল নিউরালজিয়া’ রোগের শিকার হয়েছিলেন তিনি। যাকে বাংলায় বলা হয় ‘আত্মহত্যার রোগ’ এ কথা নিজের মুখেই প্রকাশ্যে বলে দিলেন। এই রোগের কারণে এতটাই যন্ত্রণা হয় রোগীর, যে একসময় তার মনে হয় আত্মহত্যাই হচ্ছে একমাত্র মুক্তির পথ।

এই রোগের পর সালমানের ক্ষেত্রেও ঠিক এমনটাই ঘটেছিল। দুবাইয়ে ‘টিউবলাইট’ সিনেমার ‘রেডিও’ গানটি প্রকাশের অনুষ্ঠানে এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানান তিনি। রোগটি নিয়ে যেন সচেতনতা বাড়ে, সেই উদ্দেশেই জনসমক্ষে সেই কথা তুলে ধরেন।

সালমান বলেন, ‘এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর সারা মুখজুড়ে অসহ্য যন্ত্রণা হতো। ঠিকমতো মুখ খুলতে পারতাম না। কথা বলতে পারতাম না ভালোভাবে, জড়িয়ে যেত। গলার স্বর ভেঙে গিয়েছিল। সবাই ভাবতে শুরু করেছিল আমি মদ্যপান করা শুরু করেছি। কিন্তু আমি মদ্যপান করতাম না।’

প্রসঙ্গত সম্প্রতি নতুন একটি বিজ্ঞাপনচিত্রে অভিনয় করেছেন সালমান খান। সেখানে দ্বৈত চরিত্রে দেখা যায়। একটি ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’ সিনেমার প্রেম চরিত্রে, অন্যটি বাস্তব জীবনের সালমান। এরই মধ্যে বিজ্ঞাপনটির প্রচার শুরু হয়েছে।