মিঠাই ফিরে এসেছে

জি বাংলার ‘মিঠাই’

কলকাতার বিভিন্ন চ্যানেলে যতগুলো সিরিয়াল প্রচারিত হয়, সেগুলোর মধ্যে জি বাংলার ‘মিঠাই’ এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। ‘মিঠাই’ এমন একটি মেয়ের গল্প, যার পরিবার ঐতিহ্য মেনে বহু বছর ধরে মিষ্টি তৈরি করে। মিষ্টি তৈরিতে মিঠাই নিজেও পটু। সারাক্ষণ দুষ্টুমি যেনো লেগেই থাকে।

মধ্যবিত্ত ঘরের মিঠাইয়ের বিয়ে হয়ে যায় বড় ঘরের ছেলে উচ্ছেবাবুর সঙ্গে। এরপর নানা সংকট নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সিরিয়ালটির গল্প। ‘মিঠাই’ চরিত্রটিতে অভিনয় করছেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু।

কয়েক দিন যাবত ‘মিঠাই’কে নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় ছিল তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজন। মিঠাইকে অপহরণ করে নিয়ে যায় একদল গুণ্ডা লোক। এ খবর পাওয়ার পর তাঁকে উদ্ধার করতে মাঠে নামে মিঠাইয়ের জীবনসঙ্গী উচ্ছেবাবু। অবশেষে মিঠাইকে উদ্ধার করতে সফল হন উচ্ছেবাবু।

মিঠাই সিরিয়ালের দৃশ্য

মিঠাই সিরিয়ালের দৃশ্য

ওদিকে মিঠাইকে বাঁচাতে গিয়ে উচ্ছেবাবুর যদি কিছু হয়, এ দুঃচিন্তাতেই কাহিল ছিল তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজন। অবশেষে দুজনের সুস্থ-স্বাভাবিকভাবে বাড়ি ফেরায় স্বস্তি ফিরে আসে পরিবারে। ‘মিঠাই’ সিরিয়ালে এখন উৎসব মূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। ঘটনা শুনে সমাপ্তি মনে হলেও সমাপ্তি নয়, সিরিয়ালের ঘটনা কি এত দ্রুত শেষ হয়? এই রেশ চলবে আরো বেশ কিছু পর্ব পর্যন্ত।

স্বামী উচ্ছেবাবুর মন গলানোর দায়িত্ব নিয়েছিল মিঠাই। অপহরণের এ ঘটনার পর উচ্ছেবাবু শক্ত করে আঁকড়ে ধরেছে স্ত্রীর হাত। এতে মিঠাই খুব খুশি। উচ্ছেবাবুর এখন আস্তে আস্তে পছন্দ করতে শুরু করেছে এই দুষ্টু-মিষ্টি স্ত্রীকে। মিঠাই-উচ্ছেবাবু মানে সৌমিতৃষা ও আদৃতের সম্পর্কের রসায়ন দেখার অপেক্ষায় থাকেন সিরিয়ালপ্রেমী দর্শকেরা। তাই সিরিয়ালটি টিআরপিতে নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে বেশ কয়েক মাস ধরে।

প্রতি সোম থেকে রবি বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে জি বাংলায় প্রচারিত হচ্ছে এই বিশেষ সিরিয়ালটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *