জিডি করতে কত টাকা লাগে

By | August 21, 2022
জিডি করতে কত টাকা লাগে

আমরা যখন কোন মূল্যবান জিনিস হারিয়ে ফেলি অথবা কোন বিপদে পড়ি তখন আমাদের মাথায় চলে আসে যে আশেপাশের স্থানীয় থানায় গিয়ে একটি জিডি করার কথা। আপনারা যারা আমাদের ওয়েবসাইটের নিয়মিত ভিজিটর রয়েছেন তারা অবশ্যই এর আগে আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া জিডি সম্পর্কিত সকল বিষয়গুলো জেনেছেন কিন্তু যারা নতুন রয়েছেন তারা হয়তো জিডি সম্পর্কে অনেক কিছুই জানেন না। তবে জিডি সম্পর্কে সকল তথ্যগুলো জানার জন্য কোন চিন্তার কারণ নেই আপনারা চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে সকল প্রকারের তথ্যগুলো জেনে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

আমরা যখন থানায় জিডি করতে যাব তখন যদি আমরা না জানি যে জিডি করতে ঠিক কত টাকা লাগে তাহলে কিন্তু আমাদের অনেক রকমের সমস্যায় পড়তে হবে। কিন্তু আমরা যদি আগে থেকেই জেনে রাখি যে জিডি করতে ঠিক কত টাকার প্রয়োজন হবে তাহলে আমরা সেই টাকাটি সঙ্গে নিয়ে যেতে পারবো আর এর কারণে আমাদের কোন সমস্যায় পড়তে হবে না তাই জিডি করতে কত টাকা লাগে এই সম্পর্কে জেনে রাখা অবশ্যই দরকার।

জিডি কখন করবেন?

জিডি সাধারণত করা হয় কেউ বা কিছু হারিয়ে গেলে অথবা অপরাধ মূলক কিছু ঘটনার সম্ভাবনা থাকলে। গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র যেমন প্রাতিষ্ঠানিক সনদ, জন্ম নিবন্ধন সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পরিচয় পত্র, দলিল অথবা মূল্যবান বস্তু যেমন, মোবাইল ফোন, স্বর্ণের গহনা, ইত্যাদি হারিয়ে গেলে থানায় জিডি করা যায়। এছাড়াও কোন ব্যক্তি 24 ঘন্টার বেশি নিরুদ্দেশ থাকলেও থানায় জিডি করা যায়। আপনাকে যদি কেউ কখনো হুমকি দেয় তাহলেও কিন্তু আপনি জিডি করার সুযোগ পাবেন।

জিডি করার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও খরচ

জিডি করতে কোন কাগজের প্রয়োজন হবে কিনা তা আসলে নির্ভর করবে কি বিষয়ে আপনি জিডি করতে চাচ্ছেন তার উপরে। তবে যে কোন জিডি করতে গেলে অবশ্যই সাথে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র রাখতে হবে। জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়া আপনি কোন জিডি করতে পারবেন না। যদি আপনার মোবাইল বা অন্য কোন মূল্যবান বস্তু হারিয়ে যায় তবে তা কেনার রশিদের ফটোকপি যেটির সাথে দাখিল করতে পারেন।

তবে তা বাধ্যতামূলক নয়। আবার কোন জরুরী কাগজ যেমন সনদ অথবা পরিচয় পত্র হারিয়ে গেলে তার দুই কপি ফটোকপি জমা দিতে পারেন। তবে যদি জমা দিতে না পারেন তাহলে কোন সমস্যা হবে না যদি থাকে তাহলে জমা দিতে হবে। একইভাবে কেউ আপনাকে ডিজিটাল মিডিয়ায় হুমকি দিলে তার প্রিন্ট আউট কপিও জমা দিতে হবে। অর্থাৎ জিডি করতে জাতীয় পরিচয় পত্র বাদে অন্য কাগজের জরুরি প্রয়োজন পড়তে পারে আবার নাও পারে।

একজন বাংলাদেশী নাগরিকের বাংলাদেশের যে কোন থানায় জিডি করতে কোন টাকার প্রয়োজন হয় না। জিডি হল সম্পূর্ণ বিনামূল্যের একটি সরকারি সেবা।

জিডি করা কি ভালো?

জিডি করা একটি অত্যন্ত স্বাভাবিক ও সহজ একটি বিষয়। কিন্তু আমাদের মাঝে অনেকেই রয়েছেন যারা জিডি নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি থাকার কারণে অনেকেই প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও জিডি করতে চান না। তবে এটি সম্পূর্ণ ভুল ধারণা কারণ জিডি হল আমাদের নিরাপত্তার একটি বিষয়। আমরা অনেক সময় অনেক বিপদে পড়ে থাকি এবং অনেক সময় অনেক মূল্যবান জিনিস হারিয়ে থাকে সেটা আমরা যেডির মাধ্যমে ফিরিয়ে পেতে পারি খুব সহজেই। তবে জিডি করলে যে আমরা সেই মূল্যবান জিনিসটি ফিরে পাবো এটা কিন্তু নয়। জিডি করার মাধ্যমে আমরা তাদের সাহায্য পেতে পারি সে মূল্যবান জিনিসটি ফিরিয়ে পাওয়ার জন্য। তবে যদি আমাদের ভাগ্য ভালো হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু আমরা যেটির মাধ্যমে আমাদের মূল্যবান জিনিসটি ফিরে পাবো।

আশা করি আপনারা যারা জিডি করতে কত টাকা লাগে এ বিষয়ে জানতে আগ্রহী ছিলেন তারা আমাদের দেওয়া আজকের এই আর্টিকেল থেকে জেনে নিতে পেরেছেন জিডি সম্পর্কে কত টাকা লাগে সে সম্পর্কে সকল তথ্যগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *