ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করার উপায়

ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করার উপায়

সারা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি ফিচার হলো ফেসবুক পেজ। ফেসবুক পেজ সম্পর্কে আমরা সকলের পরিচিত বিশেষ করে ফেসবুকের সকল ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন ধরনের ফেসবুক পেজে লাইক ও করে রেখেছেন যেখানে তারা নিয়মিত আপডেট পেয়ে থাকেন।

অনেক সময় শখের বশে অথবা ব্যবসায়িক স্বার্থে আপনি ফেসবুক পেজ চালু করেছেন কিন্তু সেই পেজে তেমন জনপ্রিয় নয়। এ অবস্থায় আপনি জ্বলন্ত চিন্তার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন কেননা আপনার ফেসবুক পেজটা জনপ্রিয় করা অত্যন্ত জরুরি। আজকে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চলেছি সেরা 7 টি উপায়ে যে উপায় গুলো অনুসরণ করলে আপনি স্বল্প সময়ের মধ্যেই ফেসবুক পেজ কে জনপ্রিয় করে তুলতে পারবেন।

ফেসবুকের হোম পেজে প্রবেশ করলে আমরা সর্বদা কোন না কোন পেইজের কন্টাক্ট দেখতে পাই। আপনি কি আপনার ফেসবুক পেজ এভাবে সকলের হোমপেজে পৌঁছে দিতে চান তাহলে আপনারা অবশ্যই আমাদের নির্দেশনা অনুসরণ করবেন। এই নির্দেশনা অনুসরণ করলে আপনি সহজেই ফেসবুকের পেজ জনপ্রিয় করতে পারবেন।

ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় বলতে কী বোঝায়?

আপনার কাছে ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় বলতে কী বোঝায় আপনি হয়তো উত্তর দেবেন যে প্রচুর পরিমাণ লাইক পেলে বা ভিজিটর থাকলে সেই ফেসবুক পেজ জনপ্রিয়। কিন্তু ব্যাপারটা আসলে তা নয় জনপ্রিয়তা বলতে আমরা আসলে তা বুঝি না এখন অনেকেই রয়েছেন যারা তাদের ফেসবুক পেজে অটো লাইক নিয়ে থাকেন। ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় হতে হলে পেজ এর তিনটি জিনিস থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

  • আপনার পেইজে প্রচুর পরিমাণে লাইক থাকতেছে।
  • আপনার পেজে শেয়ার করা পোস্ট এর রিচ অনেক বেশি।
  • পোস্ট বা কনটেন্ট প্রচুর পরিমাণে শেয়ার হওয়া।

ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করে তোলার ৭ টি উপায়

আলোচনার এই অংশে আমরা আপনাদের জন্য ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করে তোলার শাস্তি উপায় নিয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উপস্থাপন করতে চলেছে। আপনি নিচের অংশ থেকে অবশ্যই আমাদের দেওয়ার নির্দেশনা মেনে চলবেন।

পেজের সঠিক নামকরণ

আপনার পেজের নামের ওপর ভিত্তি করেই আপনার পেজটির জনপ্রিয়তার প্রভাব ফেলবে। পেজ এর নামকরণ পেজের কার্যক্রমের ওপর ভিত্তি করেই জনপ্রিয়তা লাভ করে। আপনার ফেসবুক পেজের নামের দেখে সবাই বুঝবে আপনি আসলে কি উদ্দেশ্যে এই পেজটি খুলেছেন এবং এই পেজে থাকলে তারা কোন কোন ধরনের তথ্য পাবেন।

ডিজেবল হওয়া ফেসবুক আইডি ফিরিয়ে আনুন

আপনি যদি জনপ্রিয় ব্যক্তি হয়ে থাকেন তাহলে নিজের নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলতে পারেন তবে আপনার যদি জনপ্রিয়তার না থেকে থাকে তাহলে এমন কোন নামে পেজ খুলবেন যেটা দেখে মানুষ আকর্ষিত হয়। অন্যদিকে যদি কোনো কার্যক্রম ভিত্তিক বাপনের মার্কেটিং এর উদ্দেশ্যে আপনি পেজ খুলে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই সুন্দরভাবে সেটা আপনার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নামের উপর ভিত্তি করে নামকরণ করতে পারেন।

নিয়মিত কনটেন্ট শেয়ার করা

শুধুমাত্র ফেসবুক চালু করে রাখলেই হবে না আপনার ফেসবুক পেজকে জনপ্রিয় করার জন্য নিয়মিত বিভিন্ন বিষয়ে কনটেন্ট শেয়ার করতে হবে। তবে কনটেন্ট শেয়ার এর ক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই মনে রাখবেন যে কোন ধরনের কনটেন্ট যেগুলো অন্যরা বেশি ব্যবহার করে সে সকল কনটেন্ট ব্যবহার করলে আপনার পোষ্টের অনেক কমে যাবে।

ফেসবুক আইডি ভেরিফাই করার নিয়ম

কনটেন্ট শেয়ার করার ক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই মজাদার কিছু পোস্ট করতে পারেন যেগুলোতে মানুষ সচরাচর করতে পছন্দ করে। কারণ আপনার কনটেন্টটি আপনাকে সবার কাছে পৌঁছে দেবে আর আপনাকে সবার কন্টাক্ট এর মাধ্যমেই হয়তো আপনার পেজে এসে সক্রিয় হবে।

বন্ধুদের মাঝে কনটেন্ট শেয়ার করুন

আপনার পেজের সর্বদা নতুন নতুন কনটেন্ট প্রকাশ করতে থাকুন কারণ আপনারা ভাল করেই জানেন মানুষ একঘেয়েমি কন্টেন কখনোই পছন্দ করে না যার কারণে আপনি অবশ্যই প্রতিদিন নতুন নতুন বিষয়ে পোস্ট করতে পারেন। তাই সব সময় চেষ্টা করবেন সিরিয়াস জোকস ডেইলি কিছু টিপস ভিডিও ইত্যাদি ধরনের কনটেন্ট আপনার পেজের মাধ্যমে শেয়ার করতে।

আপনার পেইজে যখন কোন কনটেন্ট শেয়ার করবেন তা আপনার বন্ধুদের শেয়ার করার নির্দেশনা দিবেন। এতে করে আপনার বন্ধুরা আপনার ফেসবুক পেজের কনটেন্ট শেয়ার করবে এতে করে আপনার আলাদাভাবে ফেসবুকের পেজে লাইক করবে। বন্ধুদের মাঝে কনটেন্ট শেয়ার করার মাধ্যমে আপনার ফেসবুকের পেজে জনপ্রিয়তা লাভ করবে।

বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপ বা নিউজ পোর্টালে পেজে প্রচারণা চালানো

ফেসবুকে যে সকল গ্রুপ গুলোতে অধিক মেম্বার রয়েছে অর্থাৎ যে সকল গ্রুপ অনেক বেশি জনপ্রিয় সেসকল গ্রুপে আপনি চাইলে আপনার ফেসবুকের লিংক শেয়ার করতে পারেন। এক্ষেত্রে ফেসবুক গ্রুপের এডমিনের সাথে ভাল সম্পর্ক গড়ে তোলার পর আপনার নিজের পেজের কন্টেন সেখানে শেয়ার করতে পারেন।

ফেসবুক ফলোয়ার চালু করার নিয়ম

আপনি যদি এই কাজটি করতে পারেন তাহলে সফলভাবে স্বল্প সময়ের মধ্যে আপনার পেজের জনপ্রিয়তা লাভ করাতে পারবেন। অন্যদিকে অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেমন ইন্সট্রাগ্রাম টুইটার বা যে কোন মিডিয়ায় আপনার ফেসবুক পেজের প্রচারণা চালাতে পারেন। এ সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে অনেকেই রয়েছেন যারা আপনার ফেসবুক পেজে এসে আপনার কনটেন্ট শেয়ার করতে পারে।

পেজের সেটিংস ঠিক করে সাজানো

আপনার ফেসবুক পেজের সেটিং সঠিকভাবে সাজানো খুবই দরকারি একটি কাজ। একটি মানুষের যেমন সবার আগে চেহারা যাচাই করা হয় ঠিক তেমনি আপনার ফেসবুক পেজের কার্যক্রম আপনার ফেসবুকের সেটিংস এর উপর নির্ভর করে। আপনি যদি আপনার ফেসবুক পেজ থেকে সুন্দরভাবে কাস্টমাইজ করতে পারেন তাহলে অনেকেই আপনার ফেসবুকের প্রতি আকর্ষিত হয়ে আপনাকে অনুসরণ করবেন।

সুতরাং আপনার ফেসবুক পেজে প্রবেশ করে গিয়ে সেটিংস অপশন থেকে অবশ্য সুন্দর করে এডিট করবেন যাতে সবাই এগুলো দেখে আকর্ষিত হয়। এভাবে ফেসবুকের পেজ সেটিংস করে সাজিয়ে আপনি স্বল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারছেন।

সাম্প্রতিক বিষয়ে কনটেন্ট তৈরি করা

ফেসবুকে সাধারণত যে সকল বিষয় নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন তোলা হয় সে সকল বিষয় নিয়ে আপনি ফেসবুক পেজে হ্যাশট্যাগ প্রদান করার মাধ্যমে স্বল্প সময়ের মধ্যে ফেসবুকের পেজ অনেক ব্যবহারকারীর মধ্যে ছড়িয়ে দিতে পারেন। ট্রেন্ডিং বিষয়ে হ্যাশট্যাগ প্রদান করলে ট্রেন্ডিং টপিকের ওপর যে সকল পোষ্ট গুলো ফেসবুকে করা হয়েছে তা সামনে প্রদর্শিত হয়।

মানুষ যখন এই সকল ট্রেন্ডিং বিষয়ে ফেসবুকে সার্চ করে থাকে তখন আপনার কনটেন্ট তাদের সামনে উপস্থিত হবে। হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করলে আপনার কন্ঠে একটি ক্যাটাগরি হিসেবে তালিকাবদ্ধ হয় আর যখন ফেসবুকে কেউ এই সম্পর্কিত কনটেন্ট হতে থাকে তখন আপনার কনটেন্ট তার সামনে উপস্থিত হবে।

অর্থ ব্যয় করুন

ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করার জন্য যে সকল উপায়গুলো উপরের অংশে আলোচনা করা হয়েছে সেগুলো সবগুলোই ফ্রিতে করা সম্ভব কিন্তু এখন আমরা আপনাদের জন্য যে বিষয়টি শেয়ার করতে চলেছে তা একটু ব্যয়বহুল। আপনি চাইলে আপনার ফেসবুকে অত্যাধুনিক ভিজিটর ও লাইক ফলোয়ার আনতে পারবেন তবে এক্ষেত্রে আপনাকে বেশ কিছু টাকা ইনভেস্ট করতে হবে।

ফেসবুক পেজ বুস্ট করার মাধ্যমে আপনি আপনার ফেসবুকের কনটেন্ট লাখো মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারবেন। ফেসবুক পেজ প্রমোশন বা বুষ্টিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এই কাজটি আপনি সহজেই করতে পারছেন। এতে খুব দ্রুত ম্যানুয়ালি বুষ্টিং প্রতিষ্ঠানগুলোর সাহায্যে আপনার পেজে লাইক কমেন্ট জেনারেট করে আপনার ফেসবুক পেজ এর জনপ্রিয়তা লাভ হবে।

আজকের মতো এই ছিল ফেসবুক পেজ জনপ্রিয় করার বিস্তারিত আলোচনা আমাদের পুরো আর্টিকেল। আশা করছি আমাদের নির্দেশনাগুলো আপনি যথাযথভাবে অনুসরণ করার চেষ্টা করবেন এবং স্বল্প সময়ের মধ্যেই আপনার ফেসবুক পেজটি জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে নিয়ে যেতে পারবেন।