ইতালির ভিসা আবেদন ২০২২ খরচ, যোগ্যতা, ভিসার দাম

ইতালির ভিসা আবেদন ২০২২ খরচ, যোগ্যতা, ভিসার দাম

প্রতিবছরের ন্যায় চলতি বছরের ইতালিতে প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছেন 69700 বিদেশি শ্রমিক যে তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান রয়েছে। সুতরাং আপনারা যারা ইউরোপীয় দেশ ইতালিতে কাজের জন্য যেতে চান তাদের জন্য ইহা একটি সুবর্ণ সুযোগ হতে চলেছে। অবশেষে বাংলাদেশে বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে ইতালিতে আবারো ভিসা আবেদন শুরু হয়েছে।

অতএব আপনারা যারা দেশের বাইরে ইতালিতে যেতে চান তাদের জন্য এই সুযোগটি কাজে লাগানো অত্যন্ত দরকার। তবে ইতালিতে যাওয়ার পূর্বে আপনাকে অবশ্যই এর ভিসা ও যাবতীয় তথ্য সম্পর্কে জানা অত্যন্ত জরুরী। ইউরোপের বাইরে বাংলাদেশ থেকেও কেউ কাজের জন্য ইতালিতে যেতে চান তাকে ভাবতে হবে দেশটির ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক ওয়ার্ক পারমিটের জন্য কি যোগ্যতা।

সুতরাং যারা ইন্তেজার উদ্যোগ নিচ্ছেন ও পরিকল্পনা করেছেন তাদের জন্য সরকার দেশটিতে বিদেশি কর্মীদের সংখ্যা অনেক বাড়িয়েছে। সরকার এই সপ্তাহে সর্বশেষ বার্ষিক ডিক্রেটো ফ্লুসি অনুমোদন করেছে, ইইউ দেশগুলোর বাইরে থেকে কাজ করতে আসা ব্যক্তিদের জন্য জারি করা কাজের অনুমোদনে ২০২২ সালের সংখ্যা ও সময়সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে।

আজকের আলোচনার ভিত্তিতে আপনারা জানতে পারবেন যে ইতালি দেশ যাওয়ার জন্য আপনাকে ভিসার জন্য কিভাবে আবেদন করতে হবে এখানে যেতে আপনার কেমন টাকা খরচ করতে হবে কোন কোন যোগ্যতার প্রয়োজন এবং ভিসার দাম কত তার সম্পর্কে সকল তথ্য গুলো।

যারা আবেদন করতে পারবেন

প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরেও বেশিরভাগ পারমিট অর্থাৎ 42000 অস্থায়ী মৌসুমী কর্মীদের জন্য ইতালি সরকারকর্তৃক ভিসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতালির শ্রম ও সামাজিক নীতি মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যমতে আমরা জানতে পারি যে এর মধ্যে 14000 শুধু কৃষিশ্রমিক ইতালিতে প্রবেশাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

আপনারা যদি ভেবে থাকেন যে সকলেই ইতালির ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন তাহলে বিষয়টি সম্পূর্ণ ভুল ধারণা ইতালির ভিসার জন্য বেশকিছু যোগ্যতা চেয়েছে এসকল যোগ্যতা থাকার পরেই আপনি শুধুমাত্র আবেদন করার জন্য যোগ্য হবেন। নিচের অংশে যে সকল ব্যক্তিরা ইতালির ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন তার যোগ্যতা উল্লেখ করা হলো।

  • 14000 শ্রমিকদের জন্য ভিসার জন্য আবেদন করা যাবে।
  • অ-মৌসুমী চুক্তি (কর্মচারী)’ ও স্ব-নিযুক্ত কর্মীদের জন্য আরও ২৭ হাজার পারমিট দেওয়া হবে। এর মধ্যে ২০ হাজার সড়ক পরিবহন, নির্মাণ এবং পর্যটন (হোটেল) খাতে নিযুক্ত লোকদের জন্য।
  • শ্রম মন্ত্রণালয়ের মধ্যে 100 কৌটা বিশেষত্ব ইতালি থেকে আসা শ্রমিকদের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে যাদের অন্তত পিতা-মাতা একজনের সরাসরি ইতালির সাথে যুক্ত রয়েছে।
  • ইতালি আরো 100 কোটা বিদেশি দক্ষ কর্মীদের জন্য অনুমতি দেবে যারা তাদের মূল দেশে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছে।
  • 2022 সালে আবারও নিযুক্ত কর্মীদের জন্য মোট পাঁচটি সংরক্ষিত কোটা রয়েছে।

ইতালির ভিসা আবেদন করার নিয়ম

ইতালির ভিসা বিজ্ঞপ্তি অনুসারে আমরা দেখতে পাই যে 27 শে জানুয়ারি সকাল 9 টা থেকে স্বনিযুক্ত শ্রমিক ও মৌসুমী কর্মীদের নিয়োগকর্তা এবং যারা বিদ্যমান রেমিটেন্স রূপান্তর করবেন তাদের জন্য আবেদনপত্র গ্রহণ শুরু হবে। আবেদন শুরু করার জন্য আপনাকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করা যাবে।

এই আবেদন করার জন্য আপনাকে একটি ইতালি অফ এস পি আই ডি ইলেকট্রনিক আইডি কার্ডের প্রয়োজন হবে। তবে ইতালিতে বসবাসরতদের বাইরে থেকে কেউ তা করতে পারবেন না। আবেদনপত্রে আপনি ইতালিতে কোথায় বসবাস করবেন তার ঠিকানা বিবরণ এর পাশাপাশি কাজের চুক্তির জন্য প্রয়োজনীয় সকল তথ্য যেমন কর্মসংস্থান চুক্তির একটি অনুলিপি বাজে কোন পাশে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

আবেদনপত্র গ্রহণ 17 ই মার্চ বন্ধ হবে এবং সেগুলো যে ক্রমানুসারে গৃহীত হবে সেগুলো ইকোপার্ক অভিবাসন অফিস দ্বারা যাচাই-বাছাই করে নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। যার অর্থ হলো তালিকা প্রকাশের পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করা গুরুত্বপূর্ণ।

ইতালির ভিসার দাম বা খরচ

আপনাদের মাঝে অনেকে আমাদের কাছে প্রশ্ন করেছেন যে ইতালিতে যেতে কত টাকা খরচ হয় তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই যে আপনি যদি ভিসার জন্য আবেদন করে থাকেন এবং তালিকায় আপনার নামটি থেকে থাকে তাহলে আপনাকে ভিসার দাম প্লেন ভাড়া প্রদান করতে হবে।

ইতালিতে সাধারণত দুই ভাবে আপনি যেতে পারবেন তাদের মধ্যে একটি হচ্ছে সিজনাল অন্যটি হলো Non সিজনাল। সিজনাল ভিসা হিসেবে আপনি 6 থেকে 9 মাস ইতালিতে অবস্থানরত থাকতে পারবেন অন্যদিকে নন সিজনাল হিসেবে আপনি চার মাসের বেশি সময় ইতালিতে অবস্থানরত রাখতে পারবেন।

অনেকেই জানতে চেয়েছেন যে ইতালির ভিসা খরচ কত? তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই আপনি যদি নন সিজনাল কর্মী হিসেবে ইতালিতে গিয়ে থাকেন তাহলে আপনার খরচ 10 থেকে 12 লাখ টাকার মধ্যে পড়বে। অন্যদিকে আপনি যদি সিজনাল হিসেবে ইতালিতে যান তাহলে আপনাকে সাত থেকে আট লক্ষ টাকার মধ্যেই ভ্রমন শেষ হবে।