জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করার নিয়ম ২০২২

2004 সালের শুরুর দিকে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক সারা বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য জন্ম নিবন্ধন সনদ কার্যক্রম চালু হয়। তবে তথ্য প্রযুক্তির উন্নতির ছোঁয়ায় বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। জন্ম নিবন্ধন আবেদন শুরুর দিকে হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন পত্র বিতরণ করা হলেও বর্তমানে তা ডিজিটাল করার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

হাতে লেখা 17 ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন এবং নির্ধারিত ফি ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভায় জমা দেওয়ার পর তিন থেকে চার দিনের মধ্যে আপনাকে অনলাইনে ডিজিটাল সনদ পাওয়ার সু ব্যাবস্থা করা হয়েছে। সুতরাং পুরনো অবস্থা থেকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে আসার জন্য নয় তবুও আপনার কোন সমস্যা হবেনা নিবন্ধকের কার্যালয় আপনার জন্ম নিবন্ধন টিপ 17 ডিজিটের করার জন্য নতুন করে আবেদন করতে হবে।

আপনারা যারা ডিজিটাল পদ্ধতিতে জন্ম নিবন্ধন করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি লিখা হয়েছে। যেখানে আমরা আপনাদের অনলাইন অফলাইন দুইটি পদ্ধতিতে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করা যায় তার সম্পর্কে। অতএব আপনি আমাদের পুরো আর্টিকেলটি পড়বেন এবং আপনার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এখান থেকে সংগ্রহ করবেন।

জন্ম নিবন্ধনের প্রতিলিপি জন্য আবেদন

বাংলা এবং ইংরেজি ভাষায় মূল সনদ তথ্য সংশোধনের পর আপনাকে জন্ম সনদের কপি সরবরাহ করা হবে কোন ধরনের টাকা ছাড়াই। জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার জন্য আপনাকে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক যে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট প্রদান করা হয়েছে তা ভিজিট করে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে তা সম্পূর্ণ করতে হবে। নিচের অংশে জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করেছে।

জন্ম নিবন্ধন 17 ডিজিট করার নিয়ম

  • প্রথমে আপনাকে একটি ব্রাউজার ওপেন করে বিডিআরআইএস লিখে গুগলে সার্চ করুন অথবা অফিশিয়াল bdris।gov।bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
  • অফিসে আসার পর জন্ম নিবন্ধন মেনুতে ক্লিক করুন।
  • মেনুতে ক্লিক করার মাধ্যমে আপনি একটি সাবমেনু হিসেবে জন্ম নিবন্ধন সনদ পুনর্মুদ্রণ অপশন পাবেন।
  • আপনার হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার অনলাইনে তথ্য যাচাই করুন।
  • আইডি জন্মতারিখ নিবন্ধিত ব্যক্তির নাম পিতার নাম মাতার নাম একশন ইত্যাদি আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে।
  • নির্বাচন করুন এখানে ক্লিক করে আপনার তথ্যগুলো কনফার্ম করুন।
  • নিবন্ধক কার্যালয়ের নাম আবেদনকারী তথ্য ফোন নাম্বার ইত্যাদি তথ্য সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।
  • দেখানো হবে সেটি সংরক্ষণ করুন এবং আবেদনপত্র প্রিন্ট করে রাখুন।
  • কর্তৃপক্ষ আপনার থেকে ফ্রি নিয়ে আবেদনটি জমা রেখে দেবে এবং দুই থেকে পাঁচ দিনের মধ্যে বাংলা এবং ইংরেজী ভার্সনে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পেয়ে যাবেন।

জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করার ফি কত?

একটি শিশু জন্ম গ্রহণের 45 দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন সম্পন্ন করে ফেলা উত্তম আবার অনেকে বয়স কমানোর জন্যই এটি কোনোভাবেই করতে রাজি হন না। আপনি যদি জন্ম নিবন্ধনের জন্য ডিজিটাল করতে চান তাহলে আপনাকে একটি নির্দিষ্ট পরিমান টাকা ইউনিয়ন পরিষদ পৌরসভা অথবা সিটি কর্পোরেশনকে প্রদান করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করার জন্য আপনাকে 250 টাকা যে কোন মোবাইল ব্যাংকিং সেবা অথবা ট্রেজারি ফরম মাধ্যমে কোন ব্যাংক থেকে পরিশোধ করতে হবে। আপনার তথ্যগুলো যাচাই করে অবশ্যই নিকটস্থ ব্যাংকে যোগাযোগ করে আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করার যে ফি নির্ধারণ করা হয়েছে তা প্রদান করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত অন্যান্য যেকোনো প্রশ্নের সম্মুখীন হলে আমাদের নিচের কমেন্ট বক্সে তা জানাতে পারেন। আমরা প্রতিনিয়ত ও আপনাদের সাহায্য করার উদ্দেশ্যে আমাদের এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছে এবং জন্ম নিবন্ধন বিষয়ক সকল তথ্য উপস্থাপন করেছে। আমাদের পাশে থেকে আপনার মূল্যবান সময় দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।