bdris gov bd br Application নতুন জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন

By | May 21, 2022

জন্মনিবন্ধনের অধিকার আমাদের মৌলিক একটা দায়িত্ব যার কারণে একটি শিশুর জন্মের তিন মাসের পরে তাকে সরকারি খাতায় নিবন্ধিত করতে হয়। সুতরাং আপনি যদি আপনার শিশু বা অন্য কারো জন্ম নিবন্ধন করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে জন্ম নিবন্ধনের জন্য নিজেকে নিবন্ধিত করতে হবে।

নিবন্ধিত করার জন্য বর্তমানে একটি অফিসের ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে যে ওয়েবসাইটে আপনি আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন এবং তা যথাযথভাবে পূরণ করে আপনার নিবন্ধন ফরমেট ছবিসহ সকল তথ্য প্রদান করতে হবে। আপনাদের সাহায্য কর লক্ষ্যে আমরা নতুন জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার যে ওয়েবসাইট রয়েছে সে ওয়েবসাইট সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য এবং কিভাবে নতুন জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করবেন তা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করেছে।

bdris।gov।bd/br/application

জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করার শুরুর দিকে প্রথম ধাপে হাতে লিখে বাংলাদেশের সকল বয়সের মানুষের জন্ম নিবন্ধন করা হলেও বর্তমানে এখন হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন নেই। এখন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি হতে হবে তাছাড়া আপনি কোন কাজে ব্যবহার করতে পারবেন না।

bris.gov.bd/br/search তথ্য অনুসন্ধান করুন

নতুনভাবে যারা জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে চান তাদের উদ্দেশ্যেই আমরা বলতে চাই যে স্থানীয় পরিষদ ও বাংলাদেশ সরকারের অধীনে অনলাইনে সকল কার্যক্রম করার জন্য বর্তমানে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে যে ওয়েব সাইটের হোম পেজে ক্লিক করলে আপনি নতুন নিবন্ধনকারী হিসেবে আবেদন করার সুযোগ পাচ্ছেন। জন্ম সনদ 2004 এর জন্মের 45 দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক তবে তা যদি বাধাপ্রাপ্ত হয় এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই পাঁচ বছরের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন করতে হবে।

Screenshot-2022-05-21-at-1-46-10-PM

আলোচনার এই অংশে আমরা আপনাদের দেখাবো কিভাবে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ব্যবহার করে জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে হয় তার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। নতুন জন্ম নিবন্ধনের আবেদন তথ্য সংশোধন অনলাইনে তথ্য যাচাই করার জন্য আমাদের পুরো আর্টিকেলটি পড়ে।

bdris.gov.bd/br/correction তথ্য সংশোধন করুন

  • নতুন জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার জন্য প্রথমেই আপনাকে bdris।gov।bd/br/application ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে। তবে আপনাদের অবগতির জন্যে বলতে চাই যে এই ওয়েবসাইটের দ্বারা শুধুমাত্র আপনি অনলাইনে আবেদন করার যোগ্যতা রাখেন।
  • এরপর আপনাকে জন্মস্থান বর্তমান ঠিকানা অথবা স্থায়ী ঠিকানা যেকোনো একটি নির্বাচন করে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন।
  • পরবর্তী ধাপে আপনাকে ব্যক্তিগত তথ্য দেওয়া লাগবে যেমন আপনার নাম বাংলায় ও ইংরেজিতে, জন্মতারিখ, পিতা ও মাতার কততম সন্তান, লিঙ্গ, এবং ব্যক্তিগত স্থায়ী অস্থায়ী ঠিকানা যা দিয়ে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন করতে চান।
  • আপনার দেয়া তথ্যগুলো যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন।
  • পরবর্তী ধাপে আপনার থেকে আপনার পিতা-মাতার জাতীয় জন্মনিবন্ধনের যে নম্বর রয়েছে তা প্রদান করতে হবে, পিতা ও মাতার নাম বাংলায়, পিতা-মাতার জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর ইত্যাদি সকল তথ্য।
  • পরিশেষে আপনাকে একটি ফোন নাম্বার এবং ইমেইল আইডি প্রদান করতে হবে ব্যক্তিগত সুবিধার জন্য।
  • আপনার আবেদন কপিটি সাবমিট করুন এবং তা একটি এ ফোর সাইজ প্রিন্ট করে নিন।
  • অতঃপর আবেদন ফরম টি নিকটস্থ ইউনিয়ন পরিষদ পৌরসভা অথবা সিটি কর্পোরেশনের অফিসে গিয়ে সরাসরি যোগাযোগ করুন।
  • ধারণা করা যায় পরবর্তী এক মাসের মধ্যে আপনার জন্ম নিবন্ধন দাখিল হয়ে যাবে এবং আপনাকে নিকটস্থ পরিষদ থেকে জানানো হবে জন্ম নিবন্ধন সংগ্রহ করার জন্য।

আমরা আশা করছি যে আমাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আপনি অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধনের জন্য নতুন নিবন্ধন আবেদন করতে পারবেন। আমরা এই অফিশিয়াল লিনক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। আমাদের পাশে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *