বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায়

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বিকাশ। এখন এই মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে থেকেই হাজার হাজার টাকা দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে মুহূর্তের মধ্যে প্রেরন করতে পারবেন।

টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে বিকাশ আপনাকে দিচ্ছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা তবুও লেনদেনের সময় আমাদের ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে। কোন কারণে আপনি যদি বিকাশ ভুল নাম্বারে টাকা প্রেরণ করে থাকেন, এ অবস্থায় আপনি টাকাটা অবশ্যই ফিরিয়ে আনতে চান। আজকের আলোচনায় আমরা আপনাদের দেখাবো কোন বিকাশ নাম্বার অথবা বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে তা কিভাবে ফিরিয়ে আনা যায় তার সম্পর্কে।

সাধারণত বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং সেবা একটি নির্দিষ্ট মোবাইল নাম্বারের উপর ভিত্তি করে একাউন্ট খোলা হয়। আপনার মোবাইল নাম্বারটি আপনার বিকাশ একাউন্ট নাম্বার টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে এ নম্বরটি প্রদান করা হয়।

তবে অনেক ক্ষেত্রে আমাদের থেকে ভুল হতেই পারে এই অবস্থায় আপনি অনেক হতাশার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। তবে হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই সম্প্রতি একটি অভিনব পদ্ধতি বের করেছে। যার মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার বিকাশ একাউন্টটি ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে তা ফিরিয়ে আনতে পারবেন তার ব্যবস্থা রয়েছে।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে করণীয়ঃ

আপনি যদি বিকাশ নাম্বারে টাকা প্রেরণ করে থাকেন এবং নাম্বারটি যদি ভুল হয়ে থাকে এ অবস্থায় আপনি অবশ্যই চাইবেন আপনার টাকাটি ফিরিয়ে আনতে। তবে টাকা ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে আপনাকে বেশ কিছু নির্দেশনা মেনে চলতে হবে যার মাধ্যমে আপনার টাকা টা ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

থানায় জিডি করা

  • মনে করুন আপনি একটি ভুল নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে দিয়েছেন টাকা পাঠানোর পর আপনাকে ট্রানজেকশন নাম্বার দেওয়া হয় এ ট্রানজেকশন নাম্বারটি সংগ্রহ করুন।
  • আপনি যে পরিমাণ টাকা প্রেরণ করেছেন ভুল নম্বরে তা সংরক্ষণ করে রাখুন।
  • টাকা প্রেরণের তারিখ আপনার বিকাশ সেন্ড মানি হিস্টরি থেকে জেনে রাখুন।
  • এসকল তথ্য গুলো নিয়ে আপনি আপনার নিকটস্থ যে থানার অধীনে অবস্থান করছেন সে থানায় জিডি করুন জেনারেল ডায়েরি।
  • থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আপনার থেকে এসকল তথ্য গুলো জানতে চাইবে এবং আপনাকে তথ্যগুলো যথাযথভাবে প্রদান করতে হবে অতঃপর আপনার জেনারেল ডায়েরি এটি কার্যকর হবে।

বিকাশ কাস্টমার সেন্টারে যোগাযোগ

থানায় জেনারেল ডায়েরি সম্পূর্ণ হলে আপনি সেখানকার একটি নমুনা কপি হাতে নিয়ে বিকাশ কাস্টমার সেন্টারে যোগাযোগ করতে হবে। বিকাশ কাস্টমার সেন্টারে আপনার থেকে থানায় প্রদানকৃত চাইবে এবং আপনার কাছ থেকে বেশ কিছু তথ্য জানতে চাইবে আপনাকে তা যথাযথ ভাবে উপস্থাপন করতে হবে।

আপনার তথ্যগুলো যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে বিকাশ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক যে নাম্বারে টাকা পাঠানো হয়েছে সেই নাম্বারে যোগাযোগ করা হবে। ওই ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করে তাকে 7 দিনের মধ্যে বিকাশ কাস্টমার সেন্টারে যোগাযোগ করার নির্দেশনা দেয়া হবে।

উক্ত ব্যক্তি যদি সাত দিনের মধ্যে বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করে তাহলে আপনার টাকাটি সহজেই ফেরত পাওয়া সম্ভব অন্যথায় ওই ব্যক্তি যদি যোগাযোগ না করে তাহলে তার অ্যাকাউন্টে পরবর্তী ৬ মাসে যদি তিনি না আসেন, তাহলে প্রেরকের অ্যাকাউন্টে টাকা পৌঁছে যাবে। পরবর্তী ৬ মাসে অ্যাকাউন্ট ঠিক না করলে অ্যাকাউন্টটি অটো ডিজেবল হয়ে যাবে চিরতরে এবং প্রেরক আদালতের সাহায্য নিয়ে টাকা আনতে পারবেন।

নন বিকাশে নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয়

আপনি যদি নন বিকাশ একাউন্টে অর্থাৎ যে নাম্বারে এখন পর্যন্ত কোনো বিকাশ একাউন্ট খোলা হয়নি এ নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে থাকেন তাহলে সহজেই আপনার টাকাটা ফেরত পাওয়া সম্ভব।

বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং সেবার তার গ্রাহকদের জন্য সকল ব্যবস্থা চালু করেছেন এখন যে নাম্বারে বিকাশ খোলা হয়নি সে নাম্বারে বিকাশ থেকে টাকা পাঠানো সম্ভব তবে আপনি চাইলে টাকা পুনরায় ফিরিয়ে আনতে পারবেন তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে নন বিকাশ নাম্বারে টাকা চলে গেলে তা ফিরিয়ে আনতে হবে।

  • টাকা ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে প্রথমেই আপনাকে বিকাশ এপ এ লগইন করতে হবে।
  • বিকাশ অ্যাপ এর ফ্রন্ট পেজ এ আসার পর আপনাকে সেন্ড মানি অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  • আপনি এই পর্যন্ত যে সকল ট্রানজেকশন করেছেন সালমান এর মাধ্যমে তা আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে।
  • আপনি জেনন বিকাশ নাম্বারে টাকা পাঠিয়েছেন সেই নাম্বারে সেন্ড মানি অপশনের পাশে ক্যানসেল লেখা থাকবে উক্ত অপশনে ক্লিক করুন।
  • আপনার সেন্ড মানি বর্জন করা হয়েছে অতঃপর আপনার টাকাটি 24 ঘন্টার মধ্যে আপনার বিকাশ ব্যালেন্স এ যোগ করা হবে।

টাকা ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি আপনি নন বিকাশ নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খুলে টাকা টি ব্যবহার করতে পারবেন এজন্য আপনি আপনার নিকটস্থ বিকাশ কাস্টমার সার্ভিস অথবা নিজের মোবাইল থেকে খুব সহজেই ঘরে বসে থেকেই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার সময় আপনাকে অবশ্যই আপনার মোবাইল নাম্বার জাতীয় পরিচয় পত্র ও ছবি প্রয়োজন হবে আপনি যদি টাকাটি আপনার ব্যালেন্স এর সাথে যুক্ত করতে চান তাহলে অবশ্যই যে নাম্বারে টাকা পৌঁছেছে সে নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন।

শুধুমাত্র এই সেবাটি দেশের দুইটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবার নগদ ও বিকাশ চালু করেছে। তাই আপনারা এই দুইটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে টাকা ফিরিয়ে আনতে পারবেন। অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবা এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি তবে আশা করা যাচ্ছে অতি শীঘ্রই তা চালু করা হবে।