ভোটার তথ্য ও ভোটার সিরিয়াল নাম্বার জানার উপায়

একজন সুনাগরিক হিসেবে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্যমতে বাংলাদেশের একজন নাগরিক 18 বছর বয়সে ভোট দান করার সক্ষমতা অর্জন করে। তবে আপনি জানেন কি ভোটকেন্দ্রে ভোট দেওয়ার জন্য আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের প্রয়োজন হয়না বরং প্রয়োজন হয় আপনার এলাকার যে ভোটার সিরিয়াল নাম্বার রয়েছে তার।

আপনি চাইলেই আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র ব্যবহার করেই অনলাইনের মাধ্যমে ভোটার সিরিয়াল নাম্বার বের করতে পারবেন। আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আমরা আপনাদের দেখাব কিভাবে ভোটার তথ্য ও ভোটার সিরিয়াল নাম্বার অনলাইন থেকে বের করতে হয়।

ভোটার সিরিয়াল নাম্বার কি?

আলোচনার শুরুতে আমরা আপনাদের জানাব ভোটার সিরিয়াল নাম্বার কি তা সম্পর্কে। ভোটার সিরিয়াল নাম্বার আপনার ভোটার এলাকার ভোটার তালিকার আপনি যে ধারাবাহিকভাবে নিবন্ধন সম্পন্ন করেছিলেন তার নম্বর। সাধারণত এই ভোটার সিরিয়াল নাম্বার 14 ডিজিটাল হয়ে থাকে। আপনার এলাকার যখন নির্বাচন অফিস থেকে কোন ব্যক্তি ভোটার তালিকাভুক্ত করতে আসে তখন আপনার তথ্য গ্রহণ করা শেষে আপনাকে একটি ভোটার সিরিয়াল নাম্বার প্রদান করেছিল প্রদান করা হয়।

এ সিরিয়াল নাম্বার সাধারণত আপনাকে ভোট দেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ভোটকেন্দ্রে প্রবেশের পর দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার প্রিজাইডিং অফিসার আপনার পরিচয় জন্য এলাকা ভিত্তিক ভোটার তালিকায় আপনার ভোটার সিরিয়াল নাম্বার জিজ্ঞেস করে। আপনার সিরিয়াল নাম্বার অনুসারে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য যাচাই করার পর আপনাকে ভোট দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।

ভোটার সিরিয়াল জানার উপায়

যেহেতু ভোটার সিরিয়াল নাম্বার জানা অত্যন্ত জরুরি তাই আপনি অবশ্যই চাইবেন ভোট প্রদানের আগে তা জানতে। অনলাইন এর মাধ্যমে বর্তমানে সকল সেবা পাওয়া যায় যার কারণে ভোটার সিরিয়াল নাম্বার জানার জন্য আপনাকে অনলাইনে দ্বারস্থ হতে হবে এবং আমাদের নিচের দেওয়া নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।

  • ভোটার সিরিয়াল নাম্বার বের করার লক্ষ্যে প্রথমেই আপনাকে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের জাতীয় পরিচয় পত্র বের করার যে অনলাইন ভিত্তিক ওয়েবসাইট রয়েছে সেই (https://services.nidw.gov.bd/nid-pub) ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।
  • আপনার ভোটার তথ্য জানার জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর অথবা জাতীয় পরিচয় পত্র রেজিস্ট্রেশন এর স্লিপ নম্বর জন্ম তারিখ এসকল তথ্য গুলো প্রদান করতে হবে। জন্ম তারিখ লেখার সময় অবশ্যই আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের যে দিন মাস ও বছর এই সিরিয়ালে লিখবেন।
  • ভোটার তথ্য দেখার জন্য সিকিউরিটি কোড এর উত্তর দেন।
  • পরিশেষে ভোটার তথ্য দেখুন এই বাটনে ক্লিক করুন।
  • ভোটার নিবন্ধন যদি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে এবং আপনার উপরের দেওয়া তথ্যগুলো যদি সঠিক হয় তাহলে ডানপাশে আপনার ভোটার তথ্য ও ভোটার সিরিয়াল নাম্বার প্রদর্শিত হবে।

বিশেষ দ্রষ্টব্য : আমাদের দেওয়া উপরের তথ্যগুলো অনুসরণ করে আপনি ভোটার তথ্য বের করার পাশাপাশি 10 ডিজিটের স্মার্ট কার্ড নম্বর ও ভোটার নম্বর ও জানতে পারবেন এছাড়াও জাতীয় পরিচয় পত্রের আসল নাকি নকল এই তথ্যটি আপনার সামনে উপস্থিত হবে।

উপরের দেওয়া আলোচনার ভিত্তিতে আপনি সহজেই ভোটার সিরিয়াল নাম্বার বের করতে পারবেন তবে মনে রাখবেন ভোটকেন্দ্রে প্রবেশের পূর্বে আপনার এলাকার প্রতিদিন আপনার ভোটের সিরিয়াল নাম্বার পৌঁছে দেয়।