ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার ১০ টি উপায়

একজন ছাত্র হিসেবে আমরা সকলেই চাই এই বয়সে টাকা ইনকাম করতে। না আপনি টাকা ইনকাম করলে নিজে থেকে পড়াশোনার খরচ চালানোর পাশাপাশি ভবিষ্যতের জন্য টাকা জমানোর পর সুগম করতে পারবেন। আমাদের দেশে গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট করার পরেও অনেকে চাকরি পায় না এ অবস্থায় একজন ছাত্র হিসেবে চাকরি পাওয়া অসম্ভব কল্পনা।

কিন্তু অনলাইনের এই যুগে চাকরির জন্য এখন আর ছোটাছুটি করা লাগে না আপনার সামান্য দক্ষতা দিয়েই আপনি ঘরে বসে থেকে চাকরি করতে পারবেন তবে আপনি যদি ছাত্র হয়ে থাকেন তাহলে এ চাকরি গুলো আপনার জন্য পার্টটাইম হতে পারে এবং ছাত্র জীবন শেষ করে তা ফুলটাইম করতে পারেন। আজকে আমরা আলোচনা করতে চলেছি ছাত্রজীবনের ইনকাম করার বেশ কিছু উপায় যেগুলো অনুসরণ করলে আপনি এই বয়সে মোটা অঙ্কের টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে ইনকাম

ছাত্র জীবন উজ্জ্বল হলে আপনার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হবে এমন একটি প্রবাদ রয়েছে আপনি যদি আপনার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করতে চান তাহলে ছাত্র অবস্থায় আপনার টাকা ইনকাম করার অভ্যাস থাকতে হবে। তবে আমরা ছাত্র জীবনে অনেকেই হতাশায় ভোগে যে কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করব এ অবস্থায় আমরা আপনাদের সাহায্য করার লক্ষ্যেই আজকের এই আর্টিকেলটি সাজিয়েছি।

Screenshot-2022-02-03-at-2-15-58-PM

অনলাইনে ইনকাম করার জন্য কি কি প্রয়োজন?

আপনাকে জানতে হবে যে আপনি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে হলে বেশ কিছু জিনিস জানা প্রয়োজন যেগুলো না জানলে আপনি কোনোভাবেই টাকা বের করতে পারবেন না।

  • প্রথমেই আপনার একটি ল্যাপটপ অথবা স্মার্টফোন থাকা জরুরি কেননা আপনি অনলাইনে চাকরি বা ইনকাম করার ক্ষেত্রে একটি ডিভাইস প্রয়োজন হবে।
  • ইন্টার্নেট ব্রাউজিং সম্পর্কে সাধারণ ধারণা থাকা প্রয়োজন এবং আপনার ডিভাইসে অবশ্যই হাই স্পিড ইন্টারনেট কানেক্ট থাকা জরুরি।
  • Internet এই বাজারের দক্ষতা ছাড়া কোন চাকরি পাওয়া সম্ভব নয় তাই অনলাইনে আপনার ইনকাম করার জন্য অবশ্যই দক্ষতার প্রয়োজন তাই আপনি যে বিষয়ে দক্ষ সে বিষয়ে কে কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।
  • বাংলা ইংরেজিতে ভালো দক্ষতা প্রয়োজন তবে ইংরেজি ইন্টারন্যাশনাল ভাষা হওয়ার কারণে ভাষায় পারদর্শী থাকলে আপনার জন্য উপকার হবে।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে ইনকাম করার উপায়

প্রতিযোগিতার এই জগতে আমরা এখন বিভিন্ন জায়গায় বিজ্ঞাপন দেখে থাকিতে ছাত্রদের জন্য অনলাইন জব অফার করা হচ্ছে পাশাপাশি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে এ নিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চালায় তবে আপনি যদি সঠিক রাস্তায় না যান তাহলে অনলাইন থেকে ইনকাম করা এতটা সহজ নয়।

আপনাকে মনে রাখতে হবে যে দক্ষতা ছাড়া কোন ভাবে টাকা ইনকাম করা সম্ভব নয় আপনার পরিশ্রম ও ধৈর্য আপনাকে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে সাহায্য করবে। অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য বেশ কয়েকটি উপাদান রয়েছে যা আমরা নিচের অংশের ধারাবাহিকভাবে আলোচনা করেছি।

Screenshot-2022-02-03-at-2-16-20-PM

ডাটা এন্ট্রি করে অনলাইনে আয়

সবচেয়ে সহজ অনলাইনে ইনকাম করার জন্য উপায় হচ্ছে ডাটা এন্ট্রি। এটা খুব সহজে ডাটা এন্ট্রির কাজ করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবে তবে এই কাজটি করার জন্য আপনার অবশ্যই কম্পিউটার মোবাইল ফোন অথবা ল্যাপটপ এর প্রয়োজন হবে।

ডাটা এন্ট্রির বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে যেমন বিভিন্ন কোম্পানি তাদের গ্রাহকদের তথ্য সংগ্রহের জন্য একটি ডাটাবেজ তৈরীর কাজ দিতে পারে। ডাটা ভেরিফাই করা। ডাটা এডিট করে তা পুনরায় উপস্থাপন করা। এতে লেখা কোন ফাইলকে কম্পিউটারে টাইপ করা হাতে। একজন ছাত্র হিসেবে এই সকল ডাটা এন্ট্রি কাজ করে আপনি সহজেই 2 থেকে 8 হাজার টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন।

কনটেন্ট রাইটিং করে অনলাইনে আয়

আলোচনায় অংশ আমরা আপনাদের অন্যতম একটি জনপ্রিয় অনলাইনে ইনকাম করার উৎস সম্পর্কে আলোচনা করেছে। আপনি যদি লেখালিখির অভ্যাস থেকে থাকে তাহলে আপনি ছাত্রজীবনে এই লেখালেখির অভ্যাস থাকে টাকা ইনকামের পরিণত করতে পারবেন।

বিভিন্ন ব্লগ ওয়েবসাইট রয়েছে যারা তাদের ওয়েবসাইট এর কাজের জন্য কনটেন্ট রাইটার নিয়োগ দিয়ে থাকে পাশাপাশি অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যারা কনটেন্ট রাইটিং ক্রয় করে থাকে আপনি এই সকল ওয়েবসাইটে যোগাযোগ করে আপনার রাইটিং স্কিল ব্যবহার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কনটেন্ট রাইটিং করে অনলাইনে ইনকাম করার ক্ষেত্রে আপনাকে একজন ভালো দক্ষতা সম্পন্ন লেখক হতে হবে। কোন ধরনের পণ্যের কনটেন্ট কপি করা যাবে না। বাংলা ও ইংরেজি যে কোনো ব্যাকরণ সম্পর্কে আপনার ধারণা থাকা প্রয়োজন। আপনি একজন কনটেন্ট রাইটার হিসেবে মাসে আর থেকে 8000 থেকে 15000 টাকা ইনকাম করতে পারবেন কেননা প্রতিটি আর্টিকেল রাইটিং এর জন্য আপনাকে 100 টাকা করে প্রদান করা হয় তবে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যারা 600 শব্দের নিচে কোন কনটেন্ট গ্রহণ করে না এবং প্রতিটি 600 শব্দের জন্য আপনি 60 টাকা করে পাবেন।

মাইক্রোসফট অফিস

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় কম্পানি মাইক্রোসফট এর চাকরি করে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সাধারণত ফ্রিল্যান্সিং হিসেবে আপনি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কাজ করতে পারবেন আপনার যদি মাইক্রোসফট ওয়ার্ড পাওয়ারপয়েন্ট এক্সেল শিট এর তিনটি সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকে তাহলে আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে সে সকল ওয়েব সাইটে আপনার দক্ষতা কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যেসব কাজ করে ছাত্ররা টাকা ইনকাম করতে পারে তা হল বিভিন্ন ডকুমেন্ট মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে টাইপ করে লেখা। পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন তৈরি করা। মাইক্রোসফট এক্সেল স্প্রেডশীত ডাটা এন্ট্রি করা। মাইক্রোসফ্ট এই তিনটি কাজ করে আপনি 5 হাজার থেকে 20 হাজার টাকা সহজেই প্রতি মাসে ইনকাম করতে পারবেন।

রিসেলিং করে অনলাইনে আয়

বর্তমানে বিদেশ এর ওয়েবসাইট এর পাশাপাশি বাংলাদেশের বেশকিছু আরে সেলিং প্লাটফর্ম রয়েছে যেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে শপআপ রিসেলার অন্যতম সব রিসেলার হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করার পর আপনি থেকে বিভিন্ন ধরনের পণ্য বিক্রি করতে পারবেন এবং সে পণ্যের দাম ও ছবি সংগ্রহ করতে হবে এবং উক্ত পণ্য মূল্য বৃদ্ধি করে আপনাকে প্রচারণা চালাতে হবে।

পণ্যের দাম যদি হয় 150 টাকা তাহলে আপনি 200 টাকা মূল্য দিয়ে বিক্রি করেন আপনার লাভ হবে 50 টাকা। অন্য সোর্সিং এবং ডেলিভারি দুইটা এসব পাপ করবে অর্থাৎ আপনি যে কোম্পানির পণ্য বিক্রি করবেন সেই কোম্পানি আপনার পণ্যটি আপনার কাছে পৌছে দেবে আপনি শুধু কাস্টমারের মাঝে প্রচারণা চালাবেন। তবে অর্ডার গ্রহণের সময় কাস্টমার থেকে আপনাকে অবশ্যই নাম মোবাইল নাম্বার ও ঠিকানা এসকল তথ্য সংগ্রহ করতে হবে।