Samsung Galaxy A33 5G মোবাইলের দাম ও স্পেসিফিকেশন

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল কোম্পানি স্যামসাং গত 17 ই মার্চ তাদের নতুন ইভেন্ট স্যামসাং এ সিরিজের বেশ কয়েকটি প্রকাশ করে। ওইদিন লঞ্চ ইভেন্টে Samsung Galaxy A33 5G এবং Galaxy A53 5G এই দুইটি মডেলের ফোন বাজারে প্রকাশ হতে চলেছে। এ লক্ষ্যে স্যামসাং ব্যবহারকারীদের উত্তেজনার শেষ নেই তারা এই ফোনটি সম্পর্কে জানতে অনেক আগ্রহী তাদের উদ্দেশ্যে আজকে আমরা স্যামসাং গ্যালাক্সি a33 মোবাইল ফিচার ও দাম নিয়ে আলোচনা করেছি।

তবে স্যামসাং ব্যবহারকারীদের জন্য সুখবর হলো এই মোবাইলটি বাজারে প্রকাশ করার পূর্বেই এই ফোনের ফিচার ও দাম অনলাইনে প্রকাশ করে দেওয়া হয় আমরা উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে অফিশিয়াল মোবাইল দাম ও ফিচারগুলো নিয়ে এখানে আলোচনা করেছি।

Samsung Galaxy A33 5G মোবাইলের স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

তথ্য প্রযুক্তির উন্নতির ছোঁয়া ইউরোপের প্রায় প্রতিটি দেশেই ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক সেবা চালু হয়ে গেছে এ অবস্থায় স্যামসাং গ্রাহক প্রকাশ করে থাকেদের কথা ভেবেই বাজারের ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক মোবাইল লঞ্চ করল। স্যামসাং সচরাচর অ্যাবাউট কম দামের মোবাইল ফোন বাজারে সচরাচর দেখা যায় না এই অবস্থায় এত কম দামে এত ভাল ফিচার পাওয়া সত্যিই অসম্ভব তাহলে চলুন সময় নষ্ট না করে স্যামসাং গ্যালাক্সি এ 33 সম্পর্কে বিস্তারিত জানি।

Screenshot-2022-03-19-at-11-40-39-AM

ডিসপ্লে

বরাবরের মতোই স্যামসাং কোম্পানির মোবাইলের ডিসপ্লের দিকে বিশেষ নজরদারি করা হয়েছে নতুন ফুল এইচডি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে যেখানে রিফ্রেশ রেট এ৩৩ ৫জি ফোনে ৬.৪ ইঞ্চির এস অ্যামোলেড (S-AMOLED) ডিসপ্লে দেওয়া হবে এবং এর ওপরে সেলফি ক্যমেরার জন্য ইনফিনিটি-ইউ টিয়ারড্রপ নচ ডিজাইন দেখতে পাওয়া যাবে।

এই ডিসপ্লেটি ১,০৮০ x ২,৪০০ পিক্সেলের ফুল এইচডি+ রেজোলিউশন, ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ৪১২পিপিআই পিক্সেল ঘনত্ব অফার করবে। এছাড়া স্ক্রিনের ওপর গরিলা গ্লাস ৫-এর সুরক্ষা থাকবে যা আপনার মোবাইলটি আরো বেশি নিরাপদ করবে।

পারফরম্যান্স

স্যামসাংয়ের অন্যান্য ফোনের মত গ্যালাক্সি সিরিজের ফোনটিক আপনাকে সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স দেবে। কেননা ফোন টি তে ব্যবহার করা হয়েছে এক্সিনস ১২৮০ চিপসেট ফোনটির ram6gb ইন্টার্নাল স্তরেজ ১২৮ জিবি বিল্ট-ইন স্টোরেজ মিলবে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ওয়ান ইউ আই (One UI 4.1) কাস্টম স্কিনে রান করবে।

মোবাইলটির ইন্টার্নাল স্তরেজ বেশি হওয়ার সুবাদে আপনি যেকোন ধরনের ভারি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন অফ গেমস খুব সহজেই খেলতে পারবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। তাছাড়া ফোনটি ব্যবহার করে আমরা কোথাও কোন লেক খুঁজে পাইনি। নিরাপত্তার খাতিরে ফোন ইন-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং ফেস আনলক সাপোর্টের মতো ফিচারগুলি পাওয়া যাবে।

ক্যামেরা

স্যামসাং মোবাইল কোম্পানি ক্যামেরার জন্য সর্বদা বিখ্যাত। গ্যালাক্সি সিরিজের অন্যান্য ফলের মতো এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অসাধারণ ক্যামেরা যা দ্বারা আপনি দারুন পিকচার ধারণ করতে পারবেন। ফন্টের পেছনের ব্যাক ক্যামেরায় রিয়ার শেলে অবস্থিত কোয়াড-ক্যামেরা ইউনিটের মধ্যে অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন (OIS) সহ ৪৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্স, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপ্থ সেন্সর।

ব্যাক ক্যামেরায় পাশাপাশি ফোনটি সেলফি ক্যামেরা তে বিশেষ নতুনত্ব নেয়া হয়েছে। ফোনটির সামনে সেলফি ক্যামেরা ভিডিও কলিং এর জন্য 13 মেগাপিক্সেলের ফুল এইচডি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে তা আপনার মোবাইলকে আরও বেশি আকর্ষিত করবে।

ব্যাটারি ব্যাকআপ

সময়ের সাথে সাথে এক স্যামসাং অন্যান্য মোবাইল কোম্পানির সাথে পাল্লা দিয়ে ব্যাটারি দিকে বিশেষ নজরদারি করেছে এ কারণে স্যামসাং গ্যালাক্সি s3 মোবাইল ফোনে ব্যাটারি ব্যাকআপ এর দিকে বিশেষ নজরদারি করেও 5000 মিলি এম্পিয়ার এর ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে।

তাছাড়া এই ফোনটির সাথে রয়েছে 25 ওয়ার্ডের চার্জার যা আপনার মোবাইলে মাত্র 35 মিনিটের মধ্যেই ফুল চার্জ করে দিতে সক্ষম। এই ফোনটি ব্যবহার করার কারনে আপনি ব্যাটারি ব্যাকআপ দীর্ঘ সময় পাবেন আশা করা যাচ্ছে 72 ঘণ্টার বেশি সময় ধরে এই ফোনটি একটানা চলবে।

অন্যান্য

স্যামসাংয়ের নতুন এই ফোনটিতে অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে দুটো সিম ব্যবহার করার জন্য ডুয়েল সিম এর প্লোট, আলাদা মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার জন্য আলাদা একটি ব্যবহার করা হয়েছে। নেটওয়ার্কের দিক দিয়ে বিশেষ পরিবর্তন আনয়ন করা হয়েছে ফাইভ-জি কানেক্টিভিটি ব্যবহার করা হয়েছে এই ফোনটিতে।

ওয়াই ফাই ৮০২.১১এসি, ব্লুটুথ ৫.১, এনএফসি, ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট সহ ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার এবং একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। Samsung Galaxy A33 হ্যান্ডসেটটির পরিমাপ ১৫৯.৭ x ৭৪ x ৮.১ মিলিমিটার। এত ভারী ব্যাটারি ব্যাকআপ করা সত্ত্বেও ফোনটির ওজন মাত্র ১৮৬ গ্রাম।

Samsung Galaxy A33 5G মোবাইলের দাম

এত দারুন সব ফিচার দেখে আপনি হয়তো আশ্চর্য হতে পারেন এই ফলটি দাম আকাশছোঁয়া হতে পারে কিন্তু স্যামসাং তাদের গ্রাহকদের কথা ভেবেই ফোনটি মিগ্রেনস বাজেটের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রেখেছেন দেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে 4 কালারের ব্লু, পীচ ও হোয়াইট। পোল্টির 6 জিবি রেম 128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ সম্বলিত একটি ভেরিয়েন্ট বাজারে প্রকাশ পেয়েছে। এই মডেলের ফোনটি ইউরোপে যার দাম ৩৭৯ ইউরো বাংলাদেশি টাকায় যার দাম ৩১,৮৫০ টাকা।

ফোনটি বাংলাদেশের বাজারে অতি শীঘ্রই পাওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে বাংলাদেশের একমাত্র ই-কমার্স ওয়েবসাইট দারাজ এর মাধ্যমে আপনি অনলাইনে অর্ডার করতে পারবেন পাশাপাশি নিকটস্থ যেকোনো স্যামসাং কাস্টমার কেয়ার থেকে সরাসরি কিনতে পারবেন।