টেলিটক মেয়াদহীন ইন্টারনেট প্যাক কেনার নিয়ম জানুন

দেশের একমাত্র সরকারি মোবাইল অপারেটর টেলিটক দারুন সব অফার দিয়ে গ্রাহকদের মন জয় করে নিয়েছেন। এ অবস্থায় বছরের শুরুর দিকে টেলিটক মোবাইল অপারেটর ঘোষণা করেন যে মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই তাদের ইন্টারনেট এর মেয়াদ থাকবে না। এ ঘোষণার পর সারাদেশের টেলিটক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা ইন্টারনেট প্যাক সম্পর্কে জানতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে টেলিটক মোবাইল অপারেটর কোম্পানি গ্রাহকদের জন্য আনলিমিটেড ইন্টারনেট প্যাক সেবা চালু করেছে।

যদিও টেলিটক বলেছে যে তারা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে চলকপদ ডাটা চালু করেছে। তবে তারা এখন অব্দি এই ক্যাম্পেইন কতদিন পর্যন্ত চলবে তা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। তবে আশা করা যাচ্ছে আজীবন মেয়াদের ইন্টারনেট প্যাকেজ অতি শীঘ্রই চালু হবে তাই পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত টেলিটক কাস্টমার এই অফারটি গ্রহণ করতে পারবেন। এ লক্ষ্যে টেলিটকের ডাটা প্যাক কেনা যাচ্ছে 16 জিবি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে আনলিমিটেড ইন্টারনেট প্যাক চালু করবেন তার সম্পর্কে জেনে ফেলে।

টেলিটক আনলিমিটেড মেয়াদের ইন্টারনেট প্যাক কেনার উপায়

টেলিটকের এই নতুন ক্যাম্পেইন দীর্ঘ সময়ব্যাপী চলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে দুইটি পদ্ধতিতে আনলিমিটেড ইন্টারনেট প্যাক কিনতে পারবেন। প্রথমটি হলো মাই টেলিটক মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আর অন্যটি হলো নির্দিষ্ট পরিমান টাকা মোবাইল রিচার্জ করে। আমরা এখানে দুইটা উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। নিচের অংশে কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে যা ব্যবহার করে আপনি সহজেই ইন্টারনেট প্যাকেজ এক্টিভেট করতে পারবেন ।

নতুনে টেলিটক আজীবন মেয়াদের ইন্টারনেট প্যাকের দাম রাখা হয়েছে হাতের নাগালের মধ্যেই 6 জিবি ইন্টারনেট প্যাকের দাম মাত্র 127 টাকা আর 26 জিবি ইন্টারনেট প্যাকের দাম মাত্র 309 টাকা ধার্য করা হয়েছে এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে এই ইন্টারনেট প্যাক গুলো আপনি এক্টিভেট করবেন

মাইটেলিটক অ্যাপের মাধ্যমে আজীবন মেয়াদ ইন্টারনেট কেনার নিয়ম

আপনি যদি একজন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন এবং আপনার মোবাইলে যদি মাই টেলিটক এপ্লিকেশনটি ইন্সটল করা থাকে তাহলে আপনি খুব সহজেই আজীবন মেয়াদের ইন্টারনেট কিনতে পারবেন। অন্যদিকে মাই টেলিটক মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন টি যদি আপনার মোবাইলে ইন্সটল করা না থাকে তাহলে অবশ্যই গুগল প্লে স্টোরে ঢুকে মাই টেলিটক অ্যাপ সার্চ করে অ্যাপটি ইনস্টল করুন এবং আপনার ফোন নাম্বার দিয়ে লগ ইন করুন। আলোচনায় অংশ আমরা আপনাদের দেখাবো অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে কিভাবে আজীবন মেয়াদের ইন্টারনেট কেনা যায় তা সম্পর্কে।

Screenshot-2022-03-17-at-7-32-30-PM


Screenshot-2022-03-17-at-7-32-39-PM

  • প্রথমে আপনাকে আপনার ফোন নাম্বার ও পিন নম্বর প্রদান করে মাই টেলিটক অ্যাপ লগইন করতে হবে।
  • অতঃপর মাই টেলিটক এর অফার নামের একটি মেনু দেখতে পাবেন উক্ত মেনুতে ক্লিক করুন।
  • অফার মেনু একদম নিচের অংশে আপনি নতুন দুইটি আনলিমিটেড অফার দেখতে পাবেন সেখানে আপনার পছন্দক্রম অনুসারে যেকোনো একটি প্যাক এক্টিভেট করতে পারবেন।
  • যদি আপনার পর্যাপ্ত ব্যালেন্স না থাকে তাহলে অফারটি এক্টিভেট করার পূর্বেই আপনার মোবাইলের ব্যালেন্স রিচার্জ করে নিন।
  • আপনার ডাটা কেনার সম্পূর্ণ হলে অ্যাপের মধ্যে ইন্টার্নেট অপশন এ ক্লিক করলেই আপনার ক্রয় কৃত ইন্টারনেট ব্যালেন্স দেখতে পাবেন।

ইন্টারনেট ব্যালেন্সে আপনি 2036 সাল পর্যন্ত মেয়াদ দেখে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই এটি একটি প্রযুক্তিগত ব্যাপার মাত্র। আপনি নিশ্চিন্তে আপনার ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন 2036 সাল এরপরেও যদি ডাটা ব্যালান্স অবশিষ্ট থাকে তাহলে আপনাকে অবশ্যই তা ব্যবহার করার সুযোগ দিবে সুতরাং এ বিষয় নিয়ে কোন টেনশন করতে হবে না।

ব্যালেন্স রিচার্জের মাধ্যমে মেয়াদহীন ইন্টারনেট কেনার নিয়ম

আপনার মোবাইলে যদি স্মার্টফোন না হয়ে থাকে তাহলে সমস্যা নেই কেননা আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা রিচার্জের মাধ্যমে ইন্টারনেট কেনার সুযোগ পাচ্ছেন। এজন্য আপনাকে প্যাকেজের মূল্য পরিমাণ টাকা মেন্ ব্যালেন্সে রিচার্জ করতে হবে।

যদি আপনি 6 জিবি ডাটা প্যাক কিনতে চান তাহলে আপনার ব্যবহৃত টেলিটক নাম্বার 127 টাকা একবারে রিচার্জ করতে হবে। আপনি চাইলে বিকাশ একাউন্ট নগদ একাউন্ট অথবা রকেট থেকে রিচার্জ করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন যে 127 টাকায় আপনাকে রিচার্জ করতে হবে।

আর আপনি যদি 26 জিবি প্যাক কিনতে চান তাহলে ঠিক 309 রিচার্জ করতে হবে খুব সহজ balance-recharge এরপর আপনি মোবাইলে মেসেজ পাবেন যে আপনার ডাটা প্যাকেজ চালু হয়েছে এবং আপনাকে ডাটা প্যাক চালু করার জন্য একটি ইউএসএসডি কোড প্রদান করা হবে। উক্ত কোড ডায়াল করলেই আপনার ইন্টারনেট ব্যালান্স সম্পর্কে আপনি জানতে পারবেন।

টেলিটকের এই অসাধারণ ব্যবস্থার জন্য আমরা সকলেই অপারেটরকে সাধুবাদ জানাই। আশা করা হচ্ছে অতিশীঘ্রই দেশের অন্যান্য মোবাইল অপারেটরগুলো এই সেবা চালু করবে। টেলিটকের নতুন এই অফারের ব্যাপারে কোনো প্রশ্ন থাকলে নিচের কমেন্ট বক্সে আপনি তা আমাদের জানাতে পারেন অথবা টেলিটক কাস্টমার কেয়ার ওয়ান টু ওয়ানে কল করে তাদের কাস্টমার কেয়ারের সাথে কথা বলতে পারেন।