হাজারো চ্যালেঞ্জ জয় করে ইতিহাসের সেরা বিশ্বকাপ উপহার কাতারের

By | January 2, 2023

একের পর চ্যালেঞ্জ জয় করে ইতিহাসের সেরা বিশ্বকাপ উপহার দিয়েছে কাতার। মরুর বুকে প্রথম গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে অমরত্ব পেয়েছেন মেসি। অঘটনের আসরে আছে রোনালদো-নেইমারের কান্না। হাইভোল্টেজ লড়াই। আর ইতিহাসের সেরা দাঁত কামড়ানো ফাইনাল। একনজরে দেখে নেব কেমন ছিল কাতার বিশ্বকাপ। 


এমন এক বিশ্বকাপ ফুটবলপ্রেমির সাত জনমের ভাগ্য। অঘটন, চমক আর হিসাবের মারপ্যাচের গ্রুপ পর্ব। রোমাঞ্চকর নক আউট পর্ব আর শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনাল শেষে মেসির হাতে বিশ্বকাপ। এক কথায় ব্লকবাস্টার। যেখানে আছে অশ্রু, উল্লাস আনন্দ বেদনার দারুণ বৈপরিত্য। যেন আরো একবার ফুটবল হয়ে ওঠে জীবনেরই প্রতিচ্ছবি।


অর্জনের পুরোটাই আর্জেন্টিনার। সৌদি আরবের কাছে হার দিয়ে শুরু করা দলটার হাতেই শেষ পর্যন্ত উঠেছে কাপ। গোল্ডেন বল, গোল্ডেন গ্লভস আর উদীয়মান ফুটবলারের পুরস্কারও আকাশী নীলদের। মেসির অমরত্বের আসরে ম্লান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। চোখের জলে সিআরসেভেনের বিদায় কাঁদিয়েছে সবাইকে।

 

কেঁদেছেন নেইমারও। ইনজুরি জয় করতে পারলেও আরও একবার ব্যর্থ ব্রাজিলকে হেক্সা এনে দিতে। রিচার্লিসনের টুর্নামেন্ট সেরা গোল আর আলোচিত সাম্বা নাচই প্রাপ্তি সেলেসাওদের। ল্যাটিনের শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধারের বিশ্বকাপ দেখেছে এশিয়ার নীরব বিপ্লব। এবারও নজর কেড়েছে জায়ান্ট কিলার জাপান। যদিও অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ কোরিয়ার মতো তারাও থেমেছে শেষ ষোলতে। 

 

সমকামিতা নিয়ে সরব জার্মানি মাঠের পারফরমেন্সে নীরব। জামাল মুসিয়ালার আগমনী আসরে গ্রুপ পর্ব থেকে ব্যাক টু ব্যাক বাদ পড়ার লজ্জায় ডুবেছে ডিমেনশিফট। গৃহদাহের বলি বেজলিয়াম। শূণ্য হাতেই অস্ত গেছে রেড ডেভিলদের সোনালী প্রজন্মের সূর্য। এইডেন হ্যাজার্ডের সঙ্গে বিদায়ের মঞ্চে শেষবার নেমেছিলেন ক্রোয়াট মদ্রিচ, জার্মান থমাস মুলার, স্প্যানিশ সার্জিও বুসকেটস আর ওয়েলস আইকন গ্যারেথ বেল।

 

মনে রাখতে হবে মরক্কো রূপকথা। প্রথম আফ্রিকান ও আরব হিসেবে সেমিফাইনাল খেলে ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছে এটলাস লায়ন্স। জয় করেছে আরব ও মুসলিম বিশ্বের মন। বাহবা দিতে হবে ফ্রান্সকেও। বিশ্বকাপের আগে-পরে ইনজুরিতে একাদশের প্রায় অর্ধেক ফুটবলার হারালেও মনোবল হারায়নি লে ব্লু। আরও একবার বিশ্বকাপে জাত চিনিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। যদিও ফাইনালে হ্যাটট্রিক আর গোল্ডেন বুটেই এবার শান্তনা স্পিডস্টারের।

 

হ্যাটট্রিকের তালিকায় থাকতে পারতেন শুধু গনসালো রামোস। সুইসদের বিপক্ষে পর্তুগীজ স্ট্রাইকারের অসাধারণ পারফরমেন্স বেঞ্চে বসিয়ে দিয়েছে রোনালদোকে। সেমি অটোমেটেড ভিএআরের নতুন টেকনোলজির ফাঁদ এড়িয়ে এবার ৬৪ ম্যাচে হয়েছে ১৭২ গোল। ৭-০ গোলের সবচেয়ে বড় জয়টা একমাত্র পাওয়া স্পেনের। তবে সব পাওয়া মেসি ও আর্জেন্টিনার। ইতিহাসের সেরা ফাইনালই নয়, সেরা বিশ্বকাপেই যে চ্যাম্পিয়ন আলবিসেলেস্তে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *