উত্তর আমেরিকার ৮০ হলে চলবে ‘শান’

সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরী অভিনীত সিনেমা ‘শান’ মুক্তি পেয়েছে গেল রোজা ঈদে। এবার সিনেমাটি বিশাল পরিসরে দেখা যাবে দেশের বাইরে। আগামী ২৪ জুন থেকে উত্তর আমেরিকার ৮০টি হলে দেখা যাবে ‘শান’। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশি সিনেমার অন্যতম বিশ্ব পরিবেশক প্রতিষ্ঠান স্বপ্ন স্কেয়ারক্রোর প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ অলিউল্লাহ সজীব।

 

গতকাল (৫ জুন) রাতে ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তাদের চুক্তি হয়েছে। রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের একটি রেস্টুরেন্টে ‘ডিনার উইথ সিয়াম-পূজা’ ইভেন্টের সময় এটি সম্পন্ন হয়। সিনেমাটির প্রযোজনা সংস্থা ফিল্মম্যানের পক্ষে চুক্তিস্বাক্ষর করেন প্রযোজক এম ওয়াহিদুর রহমান এবং ‘স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো বাংলাদেশ’র প্রধান নির্বাহী সৈকত সালাহউদ্দিন।

 

চুক্তিস্বাক্ষর শেষে সৈকত সালাহউদ্দিন বলেন, ‘প্রথম সপ্তাহ আমরা ৮০টি হলে মুক্তি দিচ্ছি ‘শান’। তবে আমাদের লক্ষ্য একশ’টি। পরের সপ্তাহে একশ’ পূর্ণ হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’ এদিকে ছবিটি মুক্তির আগেই বেশ কিছু ক্যাম্পেইন চালিয়েছিল সংশ্লিষ্টরা। ফ্যানমেড ট্রেলার-টিজার কন্টেস্টের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। পাশাপাশি দর্শকদের জন্য ‘ডিনার উইথ সিয়াম-পূজা’ ইভেন্টের আয়োজনের কথা বলা হয়েছিল। বিজয়ীদের নিয়ে সেই অনুষ্ঠানটি হয়েছে গতকাল।

 

ট্রেলার নির্মাণকারী চারজন বিজয়ী ও সিয়াম পূজার সঙ্গে ডিনারের সুযোগ পাওয়া ২০ জন দর্শকের সঙ্গে রাতের খাবার সারেন সিয়াম-পূজাসহ ‘শান’র নির্মাতা এম রাহিম, গল্পকার আজাদ খানসহ অন্যান্য কলাকুশলীরা। এ সময় সিয়াম বলেন, ‘‘শান’ ছবির অভূতপূর্ব সাফল্যে আমরা গর্বিত। শুধু ‘শান’ না, ঈদের সব সিনেমাই এবার দর্শকরা দেখেছেন। তাদের হলে আসার জোয়ার তৈরি হয়েছে। আশা করি, আগামীতে আরও ভালো ভালো ছবি নির্মাণে প্রযোজকরা এগিয়ে আসবেন।’’

 

পূজা বলেন, ‘‘পোড়ামন টু’ ও ‘দহন’র পর অনেক দিন পর হলে এমন দর্শক দেখলাম। সিয়াম-পুজা জুটিতে তারা বিশ্বাস রেখেছেন, এই জন্য দর্শকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা। আশা করি, আগামীতে এই ফিল্মম্যান থেকে আরও ভালো ছবির ঘোষণা আসবে।’’

 

ঈদে বাংলাদেশের পাশাপাশি মালয়েশিয়ায়ও একযোগে ‘শান’ মুক্তি পায়। কুয়ালালামপুরের টিজিভি বুকিট রাজা, রাওয়াঙ, সেরি মঞ্জুং পার্ক, টিজিভি জয়া ও জহরুল বরু সিটি স্কয়ার সিনেপ্লেক্সগুলোতে চলেছে ছবিটি। দেশের বাইরে সেসময় সিনেমাটি পরিবেশন করে বঙ্গজ ফিল্মস।