দীঘি বললেন, আপনারা ভুল ধরিয়ে দেবেন, আমি শুধরে নেবো

এবার প্রার্থনা ফারদিন দীঘির যাত্রা শুরু হচ্ছে ওটিটির দুনিয়ায়। আগামী ২জুন চরকিতে  ‘শেষ চিঠি’ নিয়ে হাজির হচ্ছেন  দীঘি। ওয়েব ফিল্মে তাঁর চরিত্রের নাম তুলি। এই তুলি অভিনেতা ইয়াশ রোহানের স্ত্রী, সাবেরী আলম তাঁর শাশুড়ি। পরিচালনা করেছেন সুমন ধর।

নির্মাতা দীঘিকে এই গল্প শুনিয়েছিলেন ২০১৯ সালে।  অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘গল্পটা প্রথম যেদিন শুনেছিলাম, সেদিন থেকেই মাথায় গেঁথে গিয়েছিল। সব সময় মনে হয়েছে কবে শুটিং করব।’

সেই শুট হয়েছে গেল বছরে একটি শুটিং হাউস ও ৩০০ ফুট এলাকায়। নতুন এই কাজ প্রসঙ্গে দীঘি বলছেন, ‘এতটুকু বলতে পারি এই সিনেমাটা দেখে কারও খারাপ লাগবে না। যে জায়গাটা ভালো লাগবে না সমালোচকেরা জানাক, আমি শুধরে নেব পরের কাজে। এটা এমন একটা গল্প, দর্শক নিজের সাথে রিলেট করতে পারবে। রোমান্টিক ঘরানার পারিবারিক গল্প’।

গল্পটা ঠিক কেমন? নায়িকা জানালেন, ‘আমি আর ইয়াশ রোহান স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের প্রতিদিনকার ঘটনা নিয়ে ছবিটির গল্প। নিত্যনতুন অভাব, সম্পর্কের টানাপোড়েন, লাল-নীল স্বপ্ন নিয়েই প্রতিটি চরিত্র বেড়ে উঠেছে। দর্শক দেখলে বুঝতে পারবে ঢাকা শহরের প্রতিটি ফ্ল্যাটে বসবাস করা পরিবারের সঙ্গে কতটা মিলে যায়।’