‘মিশন এক্সট্রিম’ সুমিত এবার রাইছু খান

বিজ্ঞাপন দিয়েই শুরুটা হয়েছিল সুমিতের। এরপর হেঁটেছেন শোবিজের নানান বাঁকে। তবে বিজ্ঞাপনের রেশ কাটার আগেই  ‘সেদিন বৃষ্টি ছিল’ সিনেমায় অভিষেক হয় এই অভিনেতার। বলছি সুমিত সেনগুপ্তর কথা।

সিনেমাতেই এখন নিয়মিত নিজেকে হাজির রাখার চেষ্টা করছেন ‘মহুয়া সুন্দরী’র অভিনেতা।সম্প্রতি মিশন এক্সট্রিম সিনেমায় অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছেন তিনি।

বৈচিত্রময় চরিত্রে নিজেকে উপস্থাপন করাই তার যেন ধ্যান জ্ঞান। এবার তিনি রাশিদ পলাশের নতুন চলচ্চিত্র ‘ময়ূরাক্ষী’তে একজন পরিচালকের ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

সুমিত জানান এবারই প্রথমবার কোনো পরিচালকের চরিত্রে দেখা যাবে তাকে।

তিনি বলেন, ‘একটা সময় কিন্তু নির্মাতা হবার খুব ইচ্ছা ছিল আমার। সেটা আর হয়ে ওঠা হয়নি। তবে এবার যেন সেই ইচ্ছা পূর্ণ হলো চরিত্রটির মাধ্যমে।’ 

তিনি আরও জানান, তার চরিত্রের নাম রাইছু খান। জিনি নিজেকে সব সময় গ্রেট মনে করেন আর অন্যদের ভাবেন মেধাহীন। কাউকে দিয়ে কিচ্ছ হবে না, যা হবার তা রাইছুকে দিয়েই হবে। তার কাছে সত্যজিৎ, ঋত্বিক ঘটক কোনো ফিল্ম মেকারই না।

এ প্রসঙ্গে নির্মাতা রাশিদ পলাশ বলেন, ‘আমরা শুরু থেকেই চরিত্র নিয়ে খুব চিন্তার মধ্যে ছিলাম, কে আসলে চরিত্রটির জন্য ঠিক ঠাক হতে পারে। সেক্ষেত্রে মনে হয়েছে সুমিত ঠিকঠাক আছে। আমাদের ছবির গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্র বলতে পারেন। দর্শক মজা পাবে।’ 

এর আগে রাশিদ পলাশের ‘পদ্মাপূরাণ’এর মূল চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সুমিত।

গোলাম রাব্বানীর চিত্রনাট্য ও সংলাপে ময়ূরাক্ষীতে আরও অভিনয় করছেন ববি, সুদীপ, দীপক সুমন, জুলফিকার চঞ্চল, সাদিয়া মাহি, মুহিন, মানিক শাহসহ আরও অনেকে। আজ ইন্টারন্যাশনালের প্রযোজনায় ছবিটির নির্বাহী প্রযোজন শাহাদাৎ হোসেন লিটন।