চার সপ্তাহের জন্য হাইকোর্টের রায় স্থগিত

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বৈধ বলে হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। রোববার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান হাইকোর্টের রায় চার সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে আদেশ দেন।

 

গত ২ মার্চ সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বৈধ বলে রায় দেন হাইকোর্ট। ওইদিন বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

 

পরদিন হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন করেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। সেই আপিলের প্রেক্ষিতেই হাইকোর্টের রায় স্থগিত করলেন চেম্বার জজ আদালত। ফলে জায়েদ খান বা নিপুণ আক্তার কেউ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে বসতে পারছে না।

 

আদেশের পর জায়েদ খানের আইনজীবী আহসানুল করিম বলেন, হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালনে স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে বলা হয়েছে। ৪ এপ্রিল আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য আসবে।

 

এদিকে নিপুণের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হাইকোর্টের রায়ের কার্যকারিতা চার সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন আদালত। এই সময়ের মধ্যে নিয়মিত সিপি (লিভ টু আপিল) করতে বলেছেন। একইসঙ্গে পক্ষগণকে স্থিতাবস্থা অব্যাহত রাখতে বলেছেন।

 

তিনি বলেন, যদি হাইকোর্টের রায়ের কার্যকারিতা স্থগিত থাকে, তাহলে যে রায়ের ফলে তিনি (জায়েদ) নিজেকে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বলতে চাইছেন, এখন ওই রায়ের কোনো কার্যকারিতা নেই।